করোনা মহামারির মাঝেই আসছে ম্যালেরিয়া, ৮ লাখ মানুষের মৃত্যুর শঙ্কা

দৈনিক কুতুবদিয়া ডেস্কঃ

করোনা মহামারির মাঝে সাব-সাহারা আফ্রিকা অঞ্চলে ম্যালেরিয়ারোধী কার্যক্রম থমকে গেছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) বলছে, চলতি বছর এই অঞ্চলে ম্যালেরিয়ার ৭ লাখ ৬৯ হাজার মানুষের প্রাণহানি ঘটতে পারে; যা এক বছর আগের তুলনায় দ্বিগুণ। করোনা মহামারির কারণে ম্যালেরিয়ারোধের প্রচেষ্টা ব্যাহত হওয়ায় আফ্রিকা অঞ্চলে প্রাণহানির এই আশঙ্কা করেছে সংস্থাটি।

আফ্রিকা অঞ্চলে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২৫ হাজারের বেশি মানুষ এবং মার গেছেন এক হাজার ২০০ জনের বেশি। করোনা মহামারি নিয়ন্ত্রণে দারিদ্রপীড়িত এই অঞ্চলের দেশগুলোর সরকার বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সঙ্গে নিবিড়ভাবে কার্যক্রম পরিচালনা করেছে।

বৃহস্পতিবার ডব্লিউএইচওর আফ্রিকা অঞ্চলের পরিচালক ডা. মাতশিদিশো মোয়েতি সতর্ক করে দিয়ে সব দেশের সরকারকে ম্যালেরিয়ারোধী কার্যক্রম নিশ্চিত করার আহ্বান জানিয়েছেন।

মোয়েতি বলেন, সাম্প্রতিক এক গবেষণায় দেখা গেছে, যদি কীটনাশক মশারি বিতরণ বন্ধ রাখা হয় এবং নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা হ্রাস করা হয় তাহলে সাব সাহারা আফ্রিকা অঞ্চলে ২০১৮ সালের চেয়ে ম্যালেরিয়ায় মৃত্যু দ্বিগুণ হতে পারে।

তিনি বলেন, ম্যালেরিয়ায় এই মৃত্যু ২০০০ সালের পর সর্বোচ্চ হবে। ইবোলা প্রাদুর্ভাবের কথা উল্লেখ করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার আফ্রিকা প্রধান বলেন, ইবোলার চেয়ে ম্যালেরিয়া এবং অন্যান্য রোগেই এই অঞ্চলে বেশি মানুষ মারা যায়। আর এটি হয় পর্যাপ্ত চিকিৎসা সুবিধা না থাকার কারণে। কোভিড-১৯ এর সঙ্গে যেন সেটির পুনরাবৃত্তি না হয় সেই আহ্বান জানান তিনি।

২০১৮ সালে আফ্রিকা অঞ্চলে ম্যালেরিয়ায় আক্রান্ত হয়েছিলেন ২১ কোটি ৩০ লাখ মানুষ এবং মারা যান ৩ লাখ ৬০ হাজার। যা বিশ্বে ম্যালেরিয়ায় মৃত্যুর প্রায় ৯০ শতাংশ। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, নতুন করোনাভাইরাসের বিস্তার ধীরগতির করতে গিয়ে যদি ম্যালেরিয়ারোধী ওষুধের সরবরাহ তিন-চতুর্থাংশ কমে যায়; তাহলে এই অঞ্চলে মারা যাবেন ৭ লাখ ৬৯ হাজার মানুষ।

করোনাভাইরাসের এই মহামারির সময় ম্যালেরিয়া প্রতিরোধ কার্যক্রম এবং চিকিৎসাসুবিধা হ্রাস করা হলে আফ্রিকা অঞ্চলের দেশগুলোতে নতুন বিপর্যয় শুরু হতে পারে বলে শঙ্কা প্রকাশ করেছে সংস্থাটি।

সূত্র: রয়টার্স।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*